ভারতে লোক আদালত কি? লোক আদালতের লাভ ও প্রক্রিয়া জানুন

লোক আদালত কি? এখানে কি কি সমস্যার সমাধান হয়? লোক আদালতে কিভাবে নিজের সমস্যার সমাধান করবেন? কোন বিষয়ে লোন আদালতে মামালা করবেন জেনে নিন পদ্ধতি ও আইনি নিয়ম।

ভারতের লোক আদালত, এখানে নাম এর মধ্যে জানা যাচ্ছে যে এর অর্থ হল People’s কোর্ট। “লোক” এর অর্থ হল “মানুষ” অথবা “লোকজন” এবং “আদালত” এর অর্থ হলো “আদালত”।

ভারতে জামিন এর স্তরের উপর সমাজে এই রকম পদ্ধতি অভ্যাস করা হয়ে থাকে, এতে এটাকে পঞ্চায়েত ও বলা হয় থাকে। আর আইনি শব্দ বলিতে এই বিষয়টিকে মধ্যস্থতা বলা হয়।

লোক আদালত এর শুরুতে 1982 তে গুজরাট রাজ্য তে শুরু করা হয়েছিল। প্রথমে লোক আদালত 14 ই মার্চ 1982 কে জুনাগর আয়োজিত করা হয়, মহারাষ্ট্র 1984 তে লোক বিচারালয় শুরু করে আন্দোলন এখন সম্পূর্ণ দেশে ছড়িয়ে পড়েছে।

ভারতে লোক আদালত কি? লোক আদালতের লাভ ও প্রক্রিয়া জানুন
ভারতে লোক আদালত কি? লোক আদালতের লাভ ও প্রক্রিয়া জানুন

এর বিকাশ এর পিছনের কারণ কেও আর মাত্র লম্বিত মামলা ছিল। আর বিচার পাওয়ার জন্য লাইনে থাকা মামলা-মোকদ্দমা এর বিষয়গুলি একটি বিশেষ পরিণতি পেত।

ভারতের সংবিধানের অনুচ্ছেদ 39 বরাবর বিচার বিনামূল্যে আইনি সহযোগিতা প্রদান করা হয়ে থাকে। এই জন্য এটি স্পষ্ট ভাবে রাজ্যের আইনি ব্যবস্থাকে সুরক্ষিত করার গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে।

যা কিনা অবসর এর উপর ভিত্তি করে উৎসাহিত করতে পারে। অনুচ্ছেদ 39 এর ভাষায় বোঝানো হয়ে থাকে 39 এ তে ইচ্ছা শব্দ এর ব্যবহার থেকে স্পষ্ট ভাবে বোঝানো হয়েছে।

লোক আদালত এর জন্য উপযুক্ত মামলা সমূহ:

  • কম্পাউন্ডেবল সিবিল রাজস্ব এবং অপরাধমূলক মামলা।
  • যানবাহন দুর্ঘটনা তে ক্ষতিপূরণের মামলার দাবি।
  • বিভাজন এর দাবি।
  • ক্ষয়ক্ষতির মামলা।
  • বৈবাহিক এবং পারিবারিক বিবাদ।
  • ভূমি অথবা জমির মামলাতে উৎপরিবর্তন।
  • ভূমি সম্বন্ধিত মামলা।
  • ভূমি অধিগ্রহণ বিবাদ।
  • ব্যাংকের অবৈতনিক ঋণ এর মামলা।
  • সেবা  জনিত লাভ এর মামলাতে।
  • পারিবারিক বিচারালয়ের মামলা।

লোক আদালতের প্রক্রিয়া:

লোক আদালতের যে সমস্ত প্রক্রিয়া গুলি দেওয়া হয়েছে সেগুলো খুবই সহজ এবং সরল। আর প্রায় সমস্ত আইন কানুন প্রতিটি মানুষের জন্য  উপকারে আসবে এবং আনুষ্ঠানিক ভাবে সম্পন্ন করা যেতে পারে।

লোক আদালতের অধ্যক্ষতা এক অথবা এক সেবা নিবৃত্ত বিচার এর অধিকার দ্বারা অধ্যক্ষ এর রূপে জানা হয়ে থাকে। যাতে দুটি অন্য সদস্য হয়ে থাকে, সাধারণত একজন উকিল আর একজন সামাজিক কার্যকর্তা।

লোক আদালতের কাছে অধিকারের মধ্যে চুক্তি করার পদ্ধতি কোন আদালতের সমক্ষে প্রতীক্ষিত কোন মামলার সাথে সাথে এমন বিবাদ কে মিটিয়ে ফেলার অধিকার ক্ষেত্র রয়েছে, যা এখনো পর্যন্ত কোন আদালতে স্থাপিত করা হয় নি বা যায় নি। এই ধরনের মামলাতে প্রকৃতিতে নাগরিক অথবা অপরাধমূলক হতে পারে।

কিন্তু কোন আইন অনুসারে কোন অপরাধ সম্বন্ধে যে কোনো মামলা সম্পর্কে যেকোনো মামলার লোক আদালত দ্বারা নির্ণয় করা যায় না। যতই এরমধ্যে জড়িত পার্টি বিষয় গুলিকে ঠিক করার সহমত দিয়ে থাকলেও।

লোক আদালত এর পুরস্কারের শেষ পর্যায়: 

লোক আদালত অনুসারে বিভিন্ন রকমের পক্ষ, লোক আদালতের বিচারপতির সিদ্ধান্তকে পালন করার জন্য সহমত জানিয়ে থাকে। এই ভাবে লোক আদালত এর পুরস্কার আদালতের নিয়মের মধ্যে দিয়ে চুক্তিবদ্ধ হয়ে থাকে।

এই জন্য আদালতের সম্বন্ধে সমস্ত রকম প্রতিক্রিয়া হয়ে থাকে, কেননা এই লোক আদালতের মধ্যে দিয়ে সাধারণ মানুষ তাদের সমস্ত রকম সমস্যার সমাধান করতে পারেন খুবই কম সময়ের মধ্যে।

লোক আদালত দ্বারা পুরস্কার আদালতে তর্কবিতর্কের প্রক্রিয়ার পরিবর্তে সোজা, সহজ-সরল ভাবে নির্ণয় করা হয়ে থাকে। যেখানে সাধারণ মানুষের কোনোরকম অসুবিধা হওয়ার কারণই নেই।

লোক আদালতের লাভ:

কোন আদালত শুল্ক  থাকে না, যদি কোন বিষয় সম্পন্ন হয়ে থাকে, তাহলে লোক আদালতের বিভাগ মিটিয়ে ফেলার জন্য সেই বিষয়টিকে আবার ফিরিয়ে দেওয়া হয়ে থাকে।

লোক আদালত দ্বারা যে সমস্ত বিষয় গুলি পর্যবেক্ষণ করা হয়, সেগুলি আইন-কানুন অনুসারে সাক্ষ্য-প্রমাণ, অধিনিয়ম এর আবেদন এর উপর ভিত্তি করে অনেক সময় নাও হতে পারে।

তাছাড়া সেই ব্যক্তির উকিল দ্বারা প্রতিনিধিত্ব করা বিভাগ এর পক্ষ, লোক আদালত এর বিচারপতির সাথে সরাসরি কথা বার্তা বলতে পারেন। আর বিবাদ এবং কারণ গুলিতে সেই কারণের ব্যাখ্যা করতে পারেন। এই জন্য যে বিষয় গুলি নিয়মিত আদালতে কখনোই সম্ভব নয়, যেটা লোক আদালতে সম্ভব।

লোক আদালতের মধ্যে দিয়ে গরিবের বিভিন্ন রকমের সমস্যার সমাধান করা যেতে পারে খুবই কম সময়ের মধ্যে এবং গরিবের আইন-কানুন এই বিষয়টি এর উপরে নির্ভর করে থাকে অনেকখানি।

কোন সাধারন জনগন তাদের সুবিধা-অসুবিধা এবং তাদের আইন সম্পর্কিত বিশেষ বিচার পাওয়ার জন্য এই লোক আদালত এ এসে এই আদালতের বিচারপতির সাথে যোগাযোগ করে সরাসরি কথা বলে তাদের সমস্যার কথা আলোচনা করতে পারেন।

এছাড়া যেটা নিয়মিত আদালতে কখনোই সম্ভব হয়ে ওঠে না, সেই বিষয় গুলি সম্পর্কে এই লোক আদালতে অনায়াসেই আলোচনা করা যেতে পারে। তার সাথে সাথে সেই বিষয় গুলির উপর নির্ভর করে সুন্দর বিচার ব্যবস্থা পাওয়া যেতে পারে। যা কিনা সমাজে বসবাসকারী গরিব শ্রেণীর মানুষের জন্য অনেক খানি সহযোগিতাপূর্ণ।

নিয়মিত আদালতে অনেক রকম খরচ বাবদ অনুসারে অনেকেই তাদের সমস্যার সমাধান করতে পারেন না। তাই তাদের জন্য এই লোক আদালত অনেক খানি সহযোগিতা করবে আশা করা যায়।

আর্থিক সমস্যার কারণে অনেকে অনেক রকম বিষয় নিয়ে হতাশাগ্রস্ত হয়ে জীবনযাপন করেন। তাদের লোক আদালতের মধ্যে দিয়ে দুর্ভাগ্যবসত কোনরকম বিবাদ, ঝগড়া, ঝামেলা, কোনরকম আইনি পরিস্থিতি ঠিক করার জন্য এই লোক আদালত এ এসে অভিযোগ দায়ের করা যেতে পারে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *