DTDC-এর সাথে শুরু করুন ব্যবসা প্রতি মাসে করতে পারবেন ১.৫ লক্ষ টাকার ইনকাম

DTDC কোম্পানি বর্তমান সময়ে তাদের কাজ আরো বাড়াবার প্ল্যান বানিয়েছে আর তার জন্য আসছে তিন থেকে পাঁচ বছরের মধ্যে ৪০০ থেকে ৫০০ কোটি টাকার নিবেশ করবে।

এর মানে হলো নতুন নতুন DTDC ফ্রেঞ্চাইজি দেওয়া শুরু করবে। এই সুযোগ নিজের ব্যবসা শুরু করার যদি আপনি বড় কিছু করতে চান আর DTDC কোম্পানির থাকে জুড়ে ভালো ইনকাম করতে চান তাহলে এই তথ্য আপনার জন্য। দেখে নিন সমস্ত তথ্য।

DTDC-এর সাথে শুরু করুন ব্যবসা প্রতি মাসে করতে পারবেন ১.৫ লক্ষ টাকার ইনকাম
DTDC-এর সাথে শুরু করুন ব্যবসা প্রতি মাসে করতে পারবেন ১.৫ লক্ষ টাকার ইনকাম

DTDC কোম্পানি আসছে তিন থেকে পাঁচ বছরের মধ্যে প্রায় সাড়ে আঠেরো হাজার জায়গায় নতুন ফ্রেঞ্চাইজি দেবে আর তার মধ্যে ৩০০ থেকেও বেশি গ্রামে DTDC তাদের ফ্রেঞ্চাইজি দেবে। বড় শহর হোক বা ছোট শহর বা গ্রাম, সব জায়গায় DTDC-এর সাথে ব্যবসা করার এটি একটি সুবর্ন সুযোগ।

DTDC কি:

এই কোম্পানি কুরিয়ারের কাজ করে অর্থাৎ জিনিসপত্র এক জায়গা থেকে অন্য জায়গা পর্যন্ত পাঠানো।

আপনার কাজ কাস্টমারদের জিনিসপত্র অন্য জায়গায় পৌঁছানো আর আপনার কাছে কোনো জিনিস আসে সেই জিনিস কে কাস্টমারের কাছে পৌঁছানো। আজ কাজ কুরিয়ার সার্ভিস ভালোই বেড়েছে এই ব্যবসায় লাভের ভাগ বেশি আছে।

কোথায় কোথায় দেওয়া হবে DTDC ফ্রেঞ্চাইজি:

সম্পূর্ণ ভারতে দেওয়া হবে DTDC ফ্রেঞ্চাইজি, এ, বি, সি এই তিন ক্যাটাগরি শহরে যে কোনো জায়গায় ফ্রেঞ্চাইজি দেওয়া হবে।

কোথায় কোথায় দেওয়া হবে DTDC ফ্রেঞ্চাইজি
কোথায় কোথায় দেওয়া হবে DTDC ফ্রেঞ্চাইজি

কত টাকা লাগবে:

♦ DTDC ফ্রেঞ্চাইজির জন্য কোনো টাকা লাগবেনা।

♦ সেটআপ-এর জন্য টাকা লাগবে।

সেটআপ-এর জন্য কত টাকা লাগবে নিচে দেখে নিন:

এ কেটাগরি শহরের মধ্যে DTDC ফ্রেঞ্চাইজি সেটআপ-এর জন্য ১.৫ লক্ষ টাকা লাগবে।

বি কেটাগরি শহরের মধ্যে DTDC ফ্রেঞ্চাইজি সেটআপ-এর জন্য ১ লক্ষ টাকা লাগবে।

সি কেটাগরি শহরের মধ্যে DTDC ফ্রেঞ্চাইজি সেটআপ-এর জন্য ৫০ হাজার টাকা লাগবে।

ফ্রেঞ্চাইজির জন্য যত টাকা লাগাবেন তার ২০% টাকা DTDC আপনাকে ঘুরে দেবে।

DTDC ফ্রেঞ্চাইজির জন্য প্রধান কি দরকার:

লোকজনের ভিড়ভাড় থাকা জায়গাকে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হবে।

DTDC অফিস গ্রাউন্ড ফ্লোরে হতে হবে।

এ কেটাগরি শহরের মধ্যে DTDC ফ্রেঞ্চাইজির জন্য কম সে কম চার জন কর্মচারী হতে হবে।

বি কেটাগরি শহরের মধ্যে DTDC ফ্রেঞ্চাইজির জন্য কম সে কম তিন জন কর্মচারী হতে হবে।

সি কেটাগরি শহরের মধ্যে DTDC ফ্রেঞ্চাইজির জন্য কম সে কম দু জন কর্মচারী হতে হবে।

DTDC ফ্রেঞ্চাইজির জন্য প্রধান কি দরকার
DTDC ফ্রেঞ্চাইজির জন্য প্রধান কি দরকার

কি কি ডকুমেন্ট লাগবে DTDC ফ্রেঞ্চাইজির জন্য :

♦ আপনাকে একটি এপ্লিকেশন ফর্ম ভরতে হবে।

♦ সিক্যুরিটি ডিপোজিট আর স্টাব্লিশমেন্ট ফীসের ডিমান্ড ড্রাফ্ট।

♦ পরিচয়পত্র যেমন ভোটার কার্ড, আধার কার্ড, লাইসেন্স ইত্যাদি।

♦ ঠিকানার জন্য রেশনকার্ড, ল্যান্ডলাইন বা টেলিফোন বিল ইত্যাদি।

♦ যেই জায়গায় অফিস করবেন সেই জায়গার এগ্রিমেন্ট

♦ পাসবুক আর ব্যাংকের স্টেটমেন্ট ইত্যাদি।

ইনকামের কত টাকা কোম্পানিকে দিতে হবে :

টোটাল টার্নওভারের ১০% লয়াল্টি ফিস কোম্পনি কে দিতে হবে।

DTDC ফ্রেঞ্চাইজির সুবিধা কি কি পাবেন:

♦ সেটআপ-এর আপনার কাছে যেই টাকা নেওয়া হবে তার মধ্যে ৫% DTDC মার্কেটিং করার জন্য খরচ করবেন।

♦ কর্মচারীদের ট্রেনিং DTDC-এর দ্বারা দেওয়া হবে। এছাড়া কাজের সফটওয়্যার, কর্মচারীদের ড্রেস DTDC দেবে ও ইন্টিরিয়রের জন্য কোম্পানি সাহায্য করবে।

♦ আবেদন করার ১৫ দিনের ভেতর সমস্ত যাচাইয়ের পর ফ্রেঞ্চাইজি দেওয়া হবে, মানে ১৫ দিনের পর আপনার ব্যবসা শুরু হয়ে যাবে।

DTDC ফ্রেঞ্চাইজি নেবার জন্য কোম্পানির সাথে ইমেলের দ্বারা সম্পর্ক করতে পারেন। কোম্পানি আপনার ইমেলের জবাব ফোন করে দেবে। এর পর DTDC দ্বারা আপনাকে ফ্রেঞ্চাইজির জন্য সমস্ত তথ্য জানাবেন।

DTDC ফ্রেঞ্চাইজির সুবিধা কি কি পাবেন
DTDC ফ্রেঞ্চাইজির সুবিধা কি কি পাবেন

উত্তর ভারতের DTDC ফ্রেঞ্চাইজির জন্য ইমেল : [email protected]

দক্ষিণ ভারতের DTDC ফ্রেঞ্চাইজির জন্য ইমেল : [email protected]

পশ্চিম ভারতের DTDC ফ্রেঞ্চাইজির জন্য ইমেল : [email protected]

পূর্ব ভারতের DTDC ফ্রেঞ্চাইজির জন্য ইমেল : [email protected]

এই ধরণের আরো নতুন ব্যবসার তথ্য পেয়ে যাবেন আমাদের ওয়েবসাইটে। সকলের সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন না আর নজর রাখবেন আমাদের ওয়েবসাইটে আরো ব্যবসার আইডিয়া পাবার জন্য।

যদি আমাদের এই তথ্য আপনাদের সাহায্য করে, যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই সকলের থাকে শেয়ার করবেন। আর এই ধরণের আরো তথ্যের জন্য নজর রাখবেন আমাদের ওয়েবসাইটে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *