সূর্যগ্রহণ 2023: সূর্যগ্রহণের সময় কি করবেন আর কি করবেন না, জানুন

বিশ্ব ব্রহ্মাণ্ড খুবই বৈচিত্র্যময়, প্রতি পদে পদে আমরা সুন্দর সুন্দর প্রাকৃতিক দৃশ্য দর্শন করে থাকি। দিন রাতের মতো, ঋতু পরিবর্তন তা ছাড়াও আরো অন্যান্য প্রাকৃতিক দুর্ঘটনা বা সুন্দর দৃশ্য আমরা দেখে থাকি। তবে তার মধ্যে সূর্যগ্রহণ হলো একটি উল্লেখযোগ্য ঘটনা।

এই সূর্য গ্রহন নিয়ে রয়েছে অনেক অনেক বিধি নিষেধ, কাহিনী এবং পৌরাণিক ঘটনা। ধর্মীয় দৃষ্টিকোণ থেকে সূর্য গ্রহণের গুরুত্ব রয়েছে অনেক খানি, আর সেই সূর্য গ্রহণ যদি বিশেষ কোনো সময় এ হয়, তাহলে তো তার গুরুত্ব আরো দ্বিগুণ পরিমাণে বেড়ে যায়।

সূর্যগ্রহণের সময় কি করবেন আর কি করবেন না, জানুন
সূর্যগ্রহণের সময় কি করবেন আর কি করবেন না, জানুন

এমন পরিস্থিতিতে বেশ কিছু বিধি-নিষেধ রয়েছে যেগুলি মেনে চলতেই হয়, না হলে শরীরের ক্ষতি হওয়ার পাশাপাশি আরো অনেক অমঙ্গল সাধন এবং সমস্যা দেখা দিতে পারে।

তো চলুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক, সূর্য গ্রহণের সময় আপনি কি করবেন আর কি করবেন না, সেগুলি সম্পর্কে:

সূর্য গ্রহণের সময় কি করবেন:

১) সূর্য গ্রহণের সময় দান করা এবং জপ করা বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এই সময় পবিত্র নদী, হ্রদ, জলাশয় এ স্নানের মন্ত্র জপ করতে হয়, এ সময়ে মন্ত্রসিদ্ধিও করা হয়।

২) সূর্য গ্রহণের সময় বাড়ির মন্দির হোক অথবা যে কোন মন্দিরের দরজা বন্ধ রাখুন। এক জায়গায় বসে ভগবানের নাম জপ করুন।

৩) আপনার যে রাশি সেই রাশি অনুসারে দানের জিনিসপত্র সংগ্রহ করুন এবং গ্রহণের পরে সেগুলি দান করে দিন, এটা শুভ বলে মনে করা হয়।

৪) সূর্য গ্রহণের সময় গর্ভবতী মহিলাদের খুবই সাবধানে থাকতে হয়, সেই কারণে এই সময়ে তাদের বিশেষ যত্ন নেওয়া প্রয়োজন, নিজেকে গৃহবন্দী করে একেবারে সোজা হয়ে বসুন। তারপরে ভগবানের নাম স্মরণ করুন, এগুলি গর্ভবতী মহিলাদের জন্য প্রযোজ্য।

৫) সূর্যগ্রহণ শেষ হয়ে গেলে অবশ্যই আপনাকে স্নান করে নিতে হবে।

৬) গ্রহণকালে ইষ্ট দেবের মন্ত্র গুলো জপ করতে থাকুন সর্বদাই।

৭) সূর্য গ্রহণ শেষ হয়ে গেলে ঘরবাড়ি পরিষ্কার করে নিন এবং তার সাথে সাথে ঘরে গঙ্গা জল ছিটিয়ে দিন, পবিত্র হওয়ার জন্য।

৮) মনে করা হয় যে, এই সময় খাবার দূষিত হয়ে ওঠে, তাই বাড়িতে রাখা খাবার থাকলে তাতে তুলসী পাতা দিয়ে রাখতে হয়।

সূর্যগ্রহণের পরে স্নান করতে হয় কেন? কারণ জেনেন কি?

সূর্যগ্রহণের সময় যে কাজ গুলি করবেন না: 

১) প্রথমত সূর্যগ্রহণের সময় বাড়ির বাইরে বের হবেন না, নিজেদের ঘরের মধ্যে বন্দি রাখার চেষ্টা করুন।

২) এই সময় কোন শুভ কাজ করা থেকে বিরত থাকুন। কারণ সূর্য গ্রহণের সময় পৃথিবীকে অশুভ শক্তি গ্রাস করে, সেই কারণে এই সময়টিতে কোন রকম শুভ কাজ করতে নেই একেবারেই।

৩) সূর্য গ্রহণের সময় ছুচে সুতো পড়াতে নেই, তার সাথে সাথে কোন রকম সেলাইয়ের কাজ একেবারেই করতে নেই।

৪) এছাড়াও সূর্য গ্রহণের সময় কিছু খাওয়া উচিত নয় অথবা রান্না করাও উচিত নয়।

৫) সূর্য গ্রহণের সময় কখনো ভুলেও সবজি অথবা ফলের খোসা ছাড়াবেন না অথবা কাটবেন না।

৬) সূর্য গ্রহণ চলাকালীন গর্ভবতী মহিলারা কখনোই ভুলেও ছুরি-কাঁচি, বটি অথবা অন্য কোন ধারালো জিনিসপত্র ব্যবহার করবেন না। কোন ধারালো জিনিস এ সময় হাতে নেওয়াও নিষেধ। গ্রহণের সময় গর্ভবতী মহিলারা ধারালো জিনিসে হাত দিলে গর্ভস্থ সন্তানের ক্ষতি হয় বলে ধারণা করা হয়।

৭) সূর্য গ্রহণ চলাকালীন কোন জায়গায় যাত্রা করতে নেই অর্থাৎ কোন জায়গার উদ্দেশ্যে আপনাকে ঘর থেকে বের হতে নেই, এটা একেবারেই নিষেধ।

৮) মহাজাগতিক এই সূর্যগ্রহণ দেখতে অনেকেই ভালোবাসেন, তবে সূর্যগ্রহণ কখনোই খালি চোখে দেখা একেবারেই উচিত নয়। বিশেষ ফিল্টার লাগানো চশমা দিয়েই তবেই এই সূর্য গ্রহণ দেখতে হয়, এমনটাই নির্দেশ দিয়েছেন বিজ্ঞানীরা।

আর হ্যাঁ, এখানে একটা কথা বলে রাখা জরুরী যে, তুলা রাশি অথবা স্বাতী নক্ষত্রে যাদের জন্ম তারা ভুলেও গ্রহণ দেখবেন না বরং গ্রহণের সময় দরজা-জানলা বন্ধ করে রাখুন।

সূর্যগ্রহণের সময় গর্ভবতী মহিলারা এইগুলি মোটেই করবেন না

৯) সূর্যগ্রহণ চলাকালীন তুলসী গাছের পাতা কখনোই তোলা উচিত নয়।

১০) ঠাকুর ঘরের দরজা বন্ধ রাখার পাশাপাশি সূর্য গ্রহণ চলাকালীন ঠাকুরকে স্পর্শ করতে নেই।

১১) সুতক কাল লেগে যাওয়ার পর পেঁয়াজ, রসুন, মদ, মাছ, মাংস, খাওয়া একেবারেই উচিত নয়।

১২) গ্রহণের সময় সূর্যের দিকে খালি চোখে ভুলেও তাকাবেন না। সূর্যের হানিকারক অতি বেগুনি রশ্মি আপনার চোখ দুটিকে খারাপ করে দিতে পারে।

১৩) সূর্যগ্রহণ চলাকালীন নেতিবাচক শক্তি বৃদ্ধি পায়, খাদ্য ও জলের উপর নেতিবাচক প্রভাব পড়ে বলে মনে করা হয়, সেই কারণে যেমন কিছু খাওয়াও উচিত নয়, তেমনি কোনো খাবার বানানোও উচিত নয়। এমনকি সূর্য গ্রহণ চলাকালীন জল পান করাও একেবারেই নিষেধ।

১৪) তার সাথে সাথে সূর্যগ্রহণ চলাকালীন ঘুমানো উচিত নয়। এদিকটা বিশেষভাবে খেয়াল রাখা জরুরী না হলে শরীরের ক্ষতি হওয়ার পাশাপাশি সংসারে নেমে আসবে অমঙ্গল।

১৫) এই সময় ভগবানের পূজা করা যেমন উচিত নয়, তেমনি বাড়ির পূজা ঘরে ভগবানের ছবি অথবা মূর্তি পরিষ্কার পবিত্র কাপড় দিয়ে ঢেকে রাখুন।

১৬) সূর্যগ্রহণ চলাকালীন নখ কাটা যাবে না অথবা চুলে চিরুনি ব্যবহার করা একেবারেই নিষিদ্ধ।

১৭) গ্রহণ চলাকালীন গোঁফ, দাড়ি কাটবেন না অথবা চুলও কাটবেন না, এটা অশুভ হলে মনে করা হয়।

নিরাপদে সূর্যগ্রহণ দেখুন এই সহজ পদ্ধতিতে

সূর্যগ্রহণ হোক অথবা চন্দ্রগ্রহণ, এই সময় এমন কিছু বিধি-নিষেধ রয়েছে যেগুলি আপনাকে মেনে চলতেই হয়। আবার এমন কিছু নিয়ম রয়েছে যেগুলি আপনাকে নিষ্ঠা ভরে পালন করতে হবে। তারপরে যেমনি আপনার পরিবারে নেতিবাচক শক্তি দূর হয়ে গিয়ে ইতিবাচক শক্তির প্রবেশ ঘটবে তেমনি আপনার শরীরের জন্য অনেকখানি উপকারী।

প্রকৃতিতে যা কিছুই ঘটে তার প্রভাব কিন্তু সরাসরি আমাদের শরীরে এবং মনের উপরে পড়ে। আর সেই কারণে ঋতু পরিবর্তনের সময়ও কিন্তু আমাদের শরীরটাও অনেকখানি সুস্থ ও অসুস্থ এর উপরে নির্ভর করে।

সূর্যগ্রহণের সময় নিজের এবং নিজের পরিবারের সকল সদস্যের খেয়াল রাখার দায়িত্ব কিন্তু আপনারই, আর এই সময় যেগুলি করা উচিত সেগুলি করুন আর যেগুলি করতে নেই সেই কাজ গুলো একেবারেই করা থেকে বিরত থাকুন।

Leave a Comment