Maha Sasthi 2023: দুর্গাপূজার মহাষষ্ঠী এই ভাবে পালন করলে সংসারে আসবে সমৃদ্ধি

টানা একটা বছরের অপেক্ষার অবসান ঘটতে চলেছে। উৎসব আনন্দের সীমাহীন উচ্ছ্বাস সকলকে ব্যাকুল করে তুলেছে। দুর্গাপুজার এই কটা দিন উৎসব আনন্দের মাতামাতির পাশাপাশি সংসারে এমন অনেক কিছু নিয়ম কানুন পালন করতে হয়, যার ফলে সমস্ত অমঙ্গল কেটে গিয়ে সংসারে যেন নেমে আসে সুখ শান্তি আর সমৃদ্ধি। এমন কোন মানুষকে খুঁজে পাওয়া যাবে না, যিনি চাইবেন না যে তার সংসারে সুখ সমৃদ্ধি বৃদ্ধি পাক, তাই না !

দুর্গাপূজার এই কটা দিন বাঙালিরা মেতে ওঠেন উৎসব আনন্দে, দুর্গা মায়ের কাছে অনেক মনের ইচ্ছা জানিয়ে অনেক স্বপ্নের কথা জানিয়ে সেগুলি যাতে তাড়াতাড়ি পূর্ণ করা যেতে পারে, সেই আশীর্বাদ চাওয়া হয়।

দুর্গাপূজার মহাষষ্ঠী এই ভাবে পালন করলে সংসারে আসবে সমৃদ্ধি
দুর্গাপূজার মহাষষ্ঠী এই ভাবে পালন করলে সংসারে আসবে সমৃদ্ধি

দেবী হলেন দুর্গতিনাশিনী, তিনি সমস্ত অশুভ শক্তিকে কাটিয়ে শুভ শক্তির সূচনা করেন। তাই এমন শুভ তিথিতে দুর্গাপুজোর কটা দিন আপনাকে খুবই নিয়ম কানুনের মধ্যে দিয়ে চলতে হবে, তবেই না আপনি সংসারে সুখ শান্তি সমৃদ্ধি ফেলাতে পারবেন।

শুভ মহাষষ্ঠী শুভেচ্ছা বার্তা ও স্ট্যাটাস

ষষ্ঠী থেকে বিজয়া দশমী এই কটা দিন সকলের মনের যত ইচ্ছা আছে সব কিছু মায়ের কাছে জানিয়ে প্রার্থনা করা হয়। অষ্টমীতে অঞ্জলি দেওয়ার সময় সবার ফুল ছুড়ে মায়ের পায়ের কাছে চলে গেলেও, অনেক জনের হাতে তখনো পর্যন্ত ফুল রয়ে যায়, কেননা এখনো তো মাকে অনেক কিছু জানানোর বাকি, কি তাই তো !

তো চলুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক, এমন কিছু মাঙ্গলিক পন্থা, যে গুলি পালন করলে আপনার সংসারে নেমে আসবে সুখ, শান্তি আর সমৃদ্ধি:

১) আর্থিক অনটন দূর করুন:

আর্থিক অনটন দূর করুন
আর্থিক অনটন দূর করুন

মায়ের কাছে প্রার্থনা করার পাশাপাশি আপনাকেও বেশ কিছু পন্থা অবলম্বন করতে হয়। টাকা পয়সা সঞ্চয় করা, উপার্জন করা, আর সেগুলিকে সঠিকভাবে ম্যানেজ করা।

এগুলো আপনার মধ্যেও থাকাটা জরুরী। এর পাশাপাশি দেবীর কাছে প্রার্থনার মধ্যে দিয়ে এই সম্পত্তি আপনি বিপুল পরিমাণে বাড়াতে পারেন।

কর্পূর হলো পূজা ক্ষেত্রে একটি পবিত্র জিনিস, যেটি আপনি দেবী মূর্তির সামনে রাখতে পারেন। সঙ্গে রাখতে পারেন কয়েকটি লবঙ্গ, পরে এই দুটি জিনিস একসঙ্গে রেখে দিয়ে তা দিয়ে মায়ের আরতি করার পরামর্শ দিয়ে থাকেন অনেক জ্যোতিষীরা।

এতে ঘরে অনেক অসুখ বিসুখও কমে যায় বলে জানানো হয়, তার সাথে সাথে আর্থিক অনটন দূর হয়ে যায়। সংসারে আসে স্বচ্ছলতা।

মহাষষ্ঠীতেই দেবীর বোধন কেন হয়? জানুন তাৎপর্য

২) নারকেল আর আতপ চাল দিয়ে ঘরে আনুন বিপুল সম্পত্তি:

নারকেল আর আতপ চাল দিয়ে ঘরে আনুন বিপুল সম্পত্তি
নারকেল আর আতপ চাল দিয়ে ঘরে আনুন বিপুল সম্পত্তি

জ্যোতিষদের মত অনুসারে বলা হয় যে, দুর্গাপূজার ষষ্ঠীর দিন একটি নারকেল নিয়ে তাতে লাল সিঁদুর দিয়ে স্বস্তিক চিহ্ন এঁকে একটি লাল চেলিতে আতপ চাল, সাদা তিল, সিদ্ধি, হলুদ ফুল, রেখে চেলি টি বেঁধে নিন। এরপর বাড়িতে ঠাকুর ঘরে ঠাকুরের স্থানে সেই চেলিটি রেখে দিতে হবে।

তবে এই কাজটি মহাষষ্ঠীর দিন করতে হবে, তারপর সেটি ঠাকুরের স্থানে ষষ্ঠী থেকে দশমী পর্যন্ত রেখে দিতে হবে। এমন করার পর আপনার মনের যত ইচ্ছা রয়েছে যত প্রার্থনা রয়েছে সবকিছু আপনি দেবী দুর্গার কাছে জানাতে পারেন।

পরবর্তীতে দশমী যখন সম্পন্ন হয়ে যাবে তখনই এই জিনিসগুলি,  টাকা যেখানে রাখা হয় সেখানে করতে হবে। এমন ক্ষেত্রে মনে করা হয় যে, দেবীর আশীর্বাদ সেই চেলির মধ্যে থাকে, যেটা আপনি আপনার সঞ্চয়ের অর্থ যেখানে রাখেন সেখানে রাখলে সেখানে উন্নতি অবশ্যম্ভাবী।

শুভ দুর্গা পূজা শুভেচ্ছা বার্তা ও স্ট্যাটাস

৩) কলা গাছের গোড়াতে হলুদ সুতো:

কলা গাছের গোড়াতে হলুদ সুতো
কলা গাছের গোড়াতে হলুদ সুতো

দেখতে দেখতে পূজা তো চলেই এসেছে। ষষ্ঠীর দিন এই বিষয়গুলি আপনাকে খেয়াল রাখতে হবে।

তাছাড়া উপরের ওই পন্থা গুলি ছাড়াও ষষ্ঠীর দিন কলা গাছের গোড়ায় যদি হলুদ রঙের সুতো বেঁধে দেন এবং পরে ষষ্ঠী থেকে দশমি পর্যন্ত সেই কলাগাছকে প্রতিদিন জল দিয়ে পূজা করেন, তাহলে অনেক সমস্যার সমাধান হতে পারে।

তবে ভক্তিতে থাকে অনেক খানি শক্তি, তাই মনে ভক্তি রাখতে একেবারেই ভুলবেন না কিন্তু।

জীবন বিপদ মুক্ত করতে সপ্তমীতে এই কাজ করুন, হবে মঙ্গলময়

৪) মহাষষ্ঠীতে বৃক্ষরোপণ:

কলা গাছের গোড়াতে হলুদ সুতো
কলা গাছের গোড়াতে হলুদ সুতো

আমাদের এই পরিবেশ সবুজে সবুজে ঘেরা। তার জন্য তো প্রয়োজন অবশ্যই গাছপালা, তাই না ! সবুজ আমাদের চোখকে কতখানি সুস্থ রাখে তা আর নতুন করে বলার কিছু নাই।

কিন্তু এর সাথে জড়িয়ে রয়েছে অনেক খানি মঙ্গল অমঙ্গল, সুখ শান্তি, তাই মহা ষষ্ঠীর দিন যদি আপনি সংসারে, ব্যবসাতে, আয় উন্নতি করতে চান, শান্তি ফিরিয়ে আনতে চান ঘরে, তাহলে মহা ষষ্ঠীর দিন বৃক্ষরোপণ করতে পারেন।

নতুন গাছ রোপন করার ফলে পৃথিবী আবার একটা স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলবে। পরিবেশ সুন্দর হয়ে সেজে উঠবে, তার সাথে সাথে যদি আপনার সংসারে সমৃদ্ধি আসে, তাহলে মন্দ কি ! এর পাশাপাশি নুন জল দিয়ে যদি ঘর মোছা যায় ঘর ঠান্ডা থাকে অথবা অনেক জীবাণু নষ্ট হয়, আর এই দিন এটা করাটাও অনেকখানি শুভ বলে মনে করেন জ্যোতিষীরা।

মহা অষ্টমীতে যে কাজগুলি করলে দেবী দুর্গা রুষ্ট হতে পারেন

মহাষষ্ঠী থেকে বিজয়া দশমী উৎসব আনন্দের শেষ নেই। এর ফাঁকে এই ছোট্ট ছোট্ট কাজগুলি আপনার জীবনে অনেকখানি পরিবর্তন আনতে পারে। তাই মনের ভক্তি আর মায়ের প্রতি বিশ্বাস রেখে এমন করার ফলে আপনি ফিরে পেতে পারেন আপনার হারানো সব কিছুই।

মা দুর্গা এসে পড়েছেন সকলের দোর গোড়ায়। তাই ঘর বাড়ি পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করে রাখতে একেবারেই ভুলবেন না। নতুন সাজ পোশাকের সাথে সাথে পরিবেশও যদি আমাদের সাথে সেজে ওঠে, তাহলে সবার জন্য সেটা অনেকখানি সুস্বাস্থ্যের এবং মঙ্গলজনক।

ঘরেতেই করুন এই ছোট্ট ছোট্ট উপাচারগুলি। যেগুলি আপনার সমস্ত সমস্যার সমাধান ঘটিয়ে জীবন ভরিয়ে তুলবে সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধিতে। তার সাথে সাথে আর্থিক অনটন যা ছিল সবটাই কেটে যাবে। সবার খুবই ভালো কাটুক শারদীয়া দুর্গাপূজা, দুর্গা পূজার শুভেচ্ছা ও ভালোবাসা রইল সকলের জন্য।

Leave a Comment