2023 ব্যাংক অফ বরোদা শিক্ষা লোন আবেদন পদ্ধতি ও কাগজপত্র

Bank of Baroda Education Loan 2023 (ব্যাংক অফ বরোদা এডুকেশন লোন): Bank of Baroda Education Loan Apply in Bengali | Documents for BOB Education Loan in Bnegali.

প্রত্যেকটি অভিভাবক চেয়ে থাকেন তাদের সন্তান উচ্চশিক্ষায় শিক্ষিত হোক, তা সে যে করেই হোক টাকা জোগাড় করতে দ্বিধাবোধ করেন না। যতটা কষ্ট, পরিশ্রম করতে হয় তা দিয়েই ছেলেমেয়েদের পড়াশোনা চালানোর চেষ্টা চালিয়ে যান অভিভাবকরা।

তবে এ উচ্চশিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে নিজের একটা স্বপ্ন তৈরি করা এবং স্বপ্নের ক্যারিয়ার তৈরি করার জন্য যথেষ্ট পরিমাণ অর্থের প্রয়োজন হয়, যা কিনা সমস্ত অভিভাবকের কাছে থাকে না। আর সেই কারণে অনেক প্রতিভা প্রায় চাপা পড়ে যায় বললেই চলে।

Bank NameBank of Baroda
Type of LoanEducation Loan
Loan Application ProcessOnline / Offline
Official Websitebankofbaroda.in

তবে আপনি যদি মনে করেন যে ছেলে মেয়েদের হোক অথবা নিজের জন্য ভালো ক্যারিয়ার তৈরি করতে, পড়াশোনার জন্য আপনি ব্যাংক অফ বরোদা (Bank of Baroda) থেকে এডুকেশন লোন (Education Loan) নিতে পারেন, যা কিনা আপনি অনেকটা সময় পাবেন পরিশোধ করার জন্য। বলতে গেলে একেবারে টানা ১৫ বছর। তাছাড়া সর্বোচ্চ ৪ লাখ টাকা লোন দিয়ে থাকে এই ব্যাংক পড়াশোনার জন্য।

ব্যাংক অফ বরোদা শিক্ষা লোন আবেদন পদ্ধতি | Bank of Baroda Education Loan in Bengali
ব্যাংক অফ বরোদা শিক্ষা লোন আবেদন পদ্ধতি | Bank of Baroda Education Loan in Bengali

তো চলুন তাহলে জানা যাক কিভাবে আপনি এই লোনের জন্য আবেদন করবেন এবং এই লোনের আরও সুবিধা গুলি জানা যাক:

Bank of Baroda Education Loan এর সুদের হার:

Bank of Baroda ছাত্রছাত্রীদের জন্য Education Loan প্রদান করে থাকে, এই ব্যাংকে শিক্ষার লোণের অনেক প্রকার রয়েছে। ছাত্রছাত্রীরা নিজেদের দরকার অনুসারে লোন নিতে পারে। দেখে নিন কোন কোন ধরনের শিক্ষার লোন ব্যাংক অফ বরোদা দিয়ে থাকে এবং তাদের সুদের হার কেমন।

Loan SchemeRate of Interest*
বরোদা বিদ্যা (Baroda Vidya)7.85% – 9.85%
বরোদা জ্ঞান (Baroda Gyan)9.0% – 9.50%
Baroda Education Loan to students of premier Institutions7.85% – 9.00%
Baroda Scholar (for study abroad)9.00% – 9.50%
Skill Loan Scheme7.85% – 9.00%
Government of India Interest Subsidy Schemes for Education Loan7.85% – 9.00%
Baroda Education Loan for EDP being offered by Premier Institutions in India7.85% – 9.00%
Baroda Education Loans for EDP being offered by Premier Institutions Abroad7.85% – 9.00%
Vidya Lakshmi Portal7.85% – 9.00%
Higher Education and Skill Development Guarantee Scheme for Pursuing Higher Education in Delhi7.85% – 9.00%

(নোটঃ মনে রাখবেন সমস্ত Interest rates পরিবর্তনশীল, এখানে দেওয়া Interest rates গুলি আবেদনের পূর্বে ব্যাংক থেকে যাচাই করে নেবেন)

সর্বোচ্চ লোন এর মাত্রা অর্থাৎ এই লোনের অ্যামাউন্ট নির্ভর করবে আপনি কি ধরনের এডুকেশন লোন নিতে চাইছেন তার উপরে। তাছাড়া আপনি যোগাযোগ করতে পারেন ব্যাংক অফ বরোদার টোল ফ্রি নাম্বার (1800 22 33 44, 1800 258 44 55, 1800 102 44 55 ) এর মাধ্যমে। সেখানে কিন্তু আপনি যাচাই করতে পারেন যে, ম্যাক্সিমাম লোন আপনি কতটা পেতে পারেন।

Bank of Baroda বিদেশে পড়াশোনার জন্য লোন:

বিদেশে পড়াশোনার জন্য ব্যাংক অফ বরোদা বিভিন্ন রকম লোন দিয়ে থাকে, এরই মধ্যে কিছু এমন শিক্ষার লোন রয়েছে যেখানে কিছু ছাড় দেয়া হয় ছাত্র-ছাত্রীদের। চলুন দেখে নেয়া যাক এই লোকগুলি সম্পর্কে কিছু বিশেষ তথ্য।

Baroda Scholar Loan (বরোদা স্কলার): 

১) এই লোনের ক্ষেত্রে প্রসেসিং ফি বলতে গেলে নেই।

২) এই লোনের সুদের হার হল: BRLLR+1.50% spread specified premier institutions এবং BRLLE+2.15% spread for institutes not specified in list.

৩) যদি কোন মহিলা এই লোনের জন্য আবেদন করে থাকেন তাহলে কিন্তু সুদের হার ০.৫০% ছাড় দেওয়া হয়।

৪) লোন পরিশোধ করার সময় আপনি পাবেন ১৫ বছর পর্যন্ত।

Bank of Baroda Scholar Education Loan ডকুমেন্টস:

১) একাডেমিক রেকর্ডস (Academic records)

২) আবেদনকারীর কমপ্লিট কেওয়াইসি (KYC)

৩) Entrance exam result (যদি থেকে থাকে)

৪) এডমিশন প্রুফ (Admission proof)

৫) Statement of cost of study/Schedule of expenses

৬) কো এপ্লিকেন্ট এর ইনকাম প্রুফ/ Guarantor (যদি থেকে থাকে)

৭) লাস্ট ৬ মাসের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট স্টেটমেন্ট (Bank statement of last 6 month)

৮) সম্পত্তির কাগজপত্র (Property documents)

Bank of Baroda Education Loan নেওয়ার যোগ্যতা:

১) প্রথমত আবেদনকারীকে হতে হবে ভারতীয় নাগরিক।

আবেদনকারী যে সমস্ত কোর্স করার জন্য এই লোন পেতে পারেন সেই কোর্স গুলি নিচে দেওয়া হল:

১) গ্রাজুয়েশন (টেকনিক্যাল কোর্সেস রেপুটেড ইউনিভার্সিটি থেকে)

২) post-graduation কোর্সেস (MCA, MBA, ইত্যাদি)

৩)  CPA থেকে যদি কোন কোর্স অফার পেয়ে থাকেন USA, CIMA-London, ইত্যাদি তে।

৪) প্রিমিয়ার ইনস্টিটিউট ফর সাইন্স টেকনোলজি, ইঞ্জিনিয়ারিং এবং ম্যাথমেটিক্স কোর্সেস

৫) প্রিমিয়ার ইনস্টিটিউট ফর ম্যানেজমেন্ট কোর্স

৬) প্রিমিয়ার ইনস্টিটিউট ফর মেডিকেল এন্ড আদার এডুকেশন, যেমন ধরুন ইকোনমিক্স, ডিজাইন কোর্সেস ইত্যাদি।

৭) ডিপ্লোমা কোর্সেস

৮) এডুকেশন লোন নেওয়ার জন্য এই সমস্ত কোর্সের ওপর নির্ভর করে আপনি যদি এই সমস্ত কোর্স এর মধ্যে যেকোনো একটি কোর্স করতে চান তাহলে ব্যাংক অফ বরোদা থেকে এডুকেশন লোন পেতে পারেন।

ব্যাংক অফ বরোদার বিভিন্ন রকমের এডুকেশন লোন দিয়ে থাকে যার মধ্যে অনেক লোক ভারতীয় শিক্ষক সংস্থার জন্য তৈরী এবং কিছু বিদেশে পড়াশোনার জন্য তৈরি করা হয়েছে। কি ছিল না এমন রয়েছে যা সরকারী অন্তর্গত সুবিধা যুক্ত, বিশেষ করে এইগুলি উচ্চশিক্ষার জন্য দেয়া হয়ে থাকে যেখানে কিছু ছাড় সরকার থেকে দেয়া হয় এরকম লোন ব্যাংক অফ বরোদা দিয়ে থাকে :

১) Baroda Vidya Loan (বরোদা বিদ্যা):

সুদের হারঃ  ৯.৮৫%

প্রসেসিং ফিঃ  নেই

Bank of Baroda Vidya Education Loan পাওয়ার যোগ্যতা:

১) এই লোন পাওয়ার জন্য আপনাকে অবশ্যই হতে হবে ভারতীয় নাগরিক।

২) স্টুডেন্টদের এডমিশন থাকতে হবে রিকগনাইজড স্কুল থেকে।

৩) এই লোন গ্যারান্টেড হবে স্টুডেন্টের বাবা অথবা মায়ের নামে।

২) Baroda Gyan Loan:

সুদের হারঃ  ৯.০০%

প্রসেসিং ফিঃ  নেই

সর্বোচ্চ চার লাখ টাকা পর্যন্ত এই এডুকেশন লোন পাওয়া যায় এবং সেটা অভিভাবকদের উপরেই নির্ভর করে।

তবে চার লাখ টাকা পর্যন্ত আপনি এডুকেশন লোন পেতে পারেন।

লোন পরিশোধ করার সময় পাবেন ১৫ বছর পর্যন্ত।

Bank of Baroda Gyan Education Loan পাওয়ার যোগ্যতা: 

এই লোন নেওয়ার জন্য আপনাকে যে যে কোর্স গুলির মধ্যে যেকোনো একটি কোর্স করতে হতে পারে:

১) post-graduation কোর্সেস (Post graduation courses)

২) প্রফেশনাল কোর্সেস (Professional courses)

৩) গ্রাজুয়েশন কোর্সেস (Graduation courses)

৪) কম্পিউটার সার্টিফিকেট কোর্সেস (Computer certificate courses)

৫) মানেজমেন্ট কোর্সেস (Management courses)

৬) ডিপ্লোমা কোর্সেস (Diploma courses)

৭) টিচার ট্রেনিং কোর্সেস (Teacher training courses)

৮) Courses such as CFA, CA, ICWA

Baroda Education Loan to Students of Premier Institutions (ভারতে পড়াশোনার জন্য):

১) প্রসেসিং ফিঃ  নেই

২) সুদের হারঃ  ৭.৮৫% – ৮.৮৫%

৩) Collateral (জামানত): এটা কিন্তু নির্ভর করে ইনস্টিটিউশনের উপরে তার ওপরে ডিফারেন্ট ক্যাটাগরির উপরেও নির্ভর করে।

List A:

১) সর্বোচ্চ ২০ লাখ টাকা পর্যন্ত কোনো রকম জামানত ছাড়াই, তাছাড়া এটা নির্ভর করে অভিভাবকদের উপরে, স্টুডেন্টদের ভবিষ্যতে ইনকামের জন্য এই ছাড় টা দেওয়া হয়ে থাকে তাছাড়া স্টুডেন্ট যখন ভবিষ্যতে ইনকাম করবে তখন এই লোন শোধ করতে হবে।

২) ২০ লাখ টাকার লোন স্টুডেন্ট ভবিষ্যতে ইনকাম করার সাথে সাথে ১০০% লোনের টাকা ১৫ বছর পর্যন্ত শোধ করার সময় পাবে।

List B:

১) সর্বোচ্চ ৭.৫ লাখ টাকা কোন জামানত ছাড়াই পাওয়া যায় এবং ভবিষ্যতে স্টুডেন্টদের ইনকামের জন্য প্রোভাইড করা হয়।

২) জামানত ছাড়া ৭.৫ লাখ টাকা ১০০% লোন এমাউন্ট স্টুডেন্টদের ইনকাম শুরু করার পর থেকে ১৫ বছর পর্যন্ত শোধ দিতে হবে।

Baroda Scholar:

১) প্রসেসিং ফিঃ ১% (পারসেন্ট) লোন এমাউন্ট এর উপর ম্যাক্সিমাম ১০ হাজার টাকার উপরে ১.৮৫%  চার্জ করে ব্যাংক অফ বরোদা।

২) জামানত: এটা নির্ভর করে লোন এমাউন্ট এর উপর এবং আলাদা আলাদা রকমের লোন এমাউন্ট এর উপরে নির্ভর করে থাকে।

সর্বোচ্চ ৪ লাখ টাকা।

সর্বোচ্চ ৪ লাখ টাকা থেকে ৭.৫০ লাখ টাকা, তবে থার্ড পার্টি গ্যারান্টেড অবশ্যই থাকতে হবে জামানত হিসেবে। ভবিষ্যতে ইনকামের পর এই লোন পরিশোধ করতে হবে।

সর্বোচ্চ ৭.৫০ লাখ টাকা এর ১০০% স্টুডেন্ট ভবিষ্যতে যখন পড়াশোনা শেষে ইনকাম শুরু করবে তারপরে এই লোন পরিশোধ করতে হবে ১৫ বছর পর্যন্ত সময় নিয়ে।

এই লোনের জন্য যোগ্যতা:

১) গ্রাজুয়েশন কোর্সেস রেপুটেড ইউনিভার্সিটি থেকে করতে হবে।

২) কোর্সের অফার থাকতে হবে CPA এর থেকে  USA, CIMA-London ইত্যাদির মধ্যে।

৩) post-graduation কোর্সেস

৪) রেগুলার ডিপ্লোমা / ডিগ্রী কোর্সেস

৫) প্রিমিয়ার ইন্সটিটিউশন মানেজমেন্ট কোর্সেস

৬) প্রিমিয়ার ইন্সটিটিউশন মেডিক্যাল কোর্সেস

৭) প্রিমিয়ার ইন্সটিটিউশন STEM কোর্সেস

৮) আবেদনকারীকে হতে হবে অবশ্যই ভারতীয় নাগরিক।

৯) সিকিওর থাকতে হবে এডমিশন সম্পর্কে, টেকনিক্যাল প্রফেশনাল কোর্সেস উপর ভিত্তি করে merit-based selection process অথবা entrance test

Bank of Baroda Education Loan আবেদন করবেন কিভাবে:

ব্যাংক অফ বরোদা অন্যান্য এডুকেশন লোন অনলাইন আবেদন করার সুবিধা দিয়ে থাকে, যেসমস্ত ছাত্রছাত্রীরা বাড়িতে বসেই শিক্ষার জন্য লোন নিতে চাই অনলাইনের মাধ্যমে ব্যাংক অফ বরোদায় আবেদন করতে পারেন। অনলাইনের মাধ্যমে আপনি এই লোনের জন্য কিভাবে কিছু সহজ পদক্ষেপ গ্রহণ করে আবেদন করবেন সেটি নিচে দেওয়া হল:

১) প্রথমত আপনাকে ব্যাংক অফ বরোদার অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে ভিজিট করতে হবে। https://www.bankofbaroda.com

২) একটি নতুন পেজ ওপেন হবে সেখান “Education Loan” এই অপশনে ক্লিক করুন।

৩) তারপর আবার একটি নতুন পেজ ওপেন হবে সেখানে “Apply Now” এই অপশনে ক্লিক করুন।

৪) তাছাড়া বিদ্যা লক্ষী লোনের জন্য সরাসরি https://www.vidyalakshmi.co.in/এই ওয়েবসাইটে যেতে পারেন। সরকার থেকে এই লোনের জন্য কিছু ছাড় দেয়া হয় বা সুদের পরিমাণ কম করা হয়, ছাত্র-ছাত্রীদের সুবিধার জন্য এবং তাদের উচ্চ শিক্ষার জন্য সরকার এর সাথে যুক্ত আছে যা ছাত্র-ছাত্রীদেরকে সাহায্য করে। এই লোন আবেদনের পূর্বে কি ধরনের লাভ পাওয়া যাবে তা অবশ্যই জেনে নেবেন।

Vidya Lakshmi Education Loan Apply Online in Bengali
Vidya Lakshmi Education Loan Apply Online in Bengali

৫) এখানে “Apply Now” অপশনে ক্লিক করুন।

৬) তারপর নতুন একটি পেজ ওপেন হবে, সেখানে আপনার রেজিস্ট্রেশন প্রসেস ভালোমতো করতে হবে, তারপর “Submit” বাটনে ক্লিক করতে হবে।

৭) আপনার আবেদনটি ব্যাংক অফ বরোদা ভালোমতো দেখে সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আপনার সাথে যোগাযোগ করবে।

Bank of Baroda Education Loan নেওয়ার ডকুমেন্টস:

আবেদনের জন্য বিভিন্ন রকম কাগজপত্রের প্রয়োজন হয় একটি কাগজ না থাকলেও রিজেক্ট করে দেয়া হয়। লোনের জন্য দরকারী সমস্ত কাগজপত্র সঙ্গে রাখবেন এবং তার একটি করে জেরক্স কপি অবশ্যই করিয়ে নেবেন। ব্যাংক অফ বরোদা থেকে এডুকেশন লোন নেওয়ার জন্য যে সমস্ত কাগজপত্র প্রয়োজন পড়বে আপনার সেগুলি হল:

১) এডমিশনের প্রমাণপত্র (Admission certificate)

২) পাসপোর্ট সাইজের ফটোগ্রাফ (Passport size photograph)

৩) অ্যাপ্লিকেশন ফর্ম (Application form)

৪) জামানতের কাগজপত্র (Collateral documents)

৫) ইনকামের প্রমাণপত্র (Income certificate)

৬) ব্যাংক স্টেটমেন্ট (Bank statements)

একাডেমিক ডকুমেন্টস (Academic Documents):

১) মার্কস কার্ড যেকোনো শিক্ষাগত যোগ্যতার

২) মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিকে মার্কস কার্ড

৩) Entrance exam mark sheet

৪) Mark sheet of GRE/IELTS/TOFEL/GMAT

৫) যেকোনো স্কলার্শিপ ডকুমেন্টস

ঠিকানার প্রমাণপত্র হিসাবে (Address proof):

১) আধার কার্ড (Aadhar card)

২) ভোটার কার্ড (Voter card)

৩) পাসপোর্ট (Passport)

৪) ড্রাইভিং লাইসেন্স (Driving licence)

পরিচয় পত্র হিসাবে (Identity proof):

১) আধার কার্ড (Aadhar card)

২) ভোটার আইডি কার্ড (Voter ID card)

৩) প্যান কার্ড (PAN card)

৪) ড্রাইভিং লাইসেন্স (Driving licence)

৫) পাসপোর্ট (Passport)

লোন নিতে গেলে সব থেকে বেশি জটিল হয়ে থাকে সেটি হলো কাগজপত্র অর্থাৎ ডকুমেন্ট, প্রায় সময় এটা দেখা যায় যে সঠিক কাগজ না হওয়ার কারণে লোন দেয়া হয় না আর ব্যাংকের থেকেও এই ব্যাপারে জানানো হয় যে আপনার কাগজেতে এই জিনিস নেই। আপনাদেরকে এটা খেয়াল রাখতে হবে যে কোন লোন আবেদনের পূর্বে সেই লোন সংক্রান্ত সমস্ত কাগজ সঠিকভাবে সংগ্রহ করে তবেই আবেদন করবেন।

Bank of Baroda Application Forms Download in PDF

Bank of Baroda All Application Forms DownloadDownload Forms

আশা করি ব্যাংক অফ বরোদা এডুকেশন লোন (Bank of Baroda Education Loan) সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য আপনারা এখানে জানতে পারলেন। এডুকেশন লোন নেওয়ার আগে এই সম্পর্কে আপনাদের জেনে রাখা দরকার এডুকেশন লোন কি কাজে লাগে আর এর জন্য আপনি আবেদন করছেন সেই লোন আপনার দরকার পড়বে কিনা।

আপনারা bangloan.com এর মাধ্যমে বিভিন্ন লোনের আবেদন পদ্ধতি এবং আবেদনের জন্য কি কি ডকুমেন্ট দরকার আর কোন কি কাজে লাগে সেই সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারেন। বিভিন্ন ব্যাংক ও বিভিন্ন ধরনের সম্পর্কে তথ্য জানার জন্য আমাদের সঙ্গে থাকবেন। আমরা প্রতিনিয়ত নতুন নতুন লোন এবং লোন সংক্রান্ত সমস্ত তথ্য সহজ ভাষায় আপনাদের জন্য নিয়ে আসবো।

HomeClick here
Official WebsiteClick here

FAQ of Bank of Baroda Education Loan

[sc_fs_multi_faq headline-0=”h3″ question-0=”ব্যাংক অফ বরোদায় শিক্ষা লোণের সুদের হার কত?” answer-0=”ব্যাঙ্ক অফ বরোদা শিক্ষা লোনের সুদের হার 7.85% থেকে শুরু হয়ে থাকে কিন্তু শিক্ষা লোনের বিভিন্ন প্রকার থাকার কারণে সুদের হার পরিবর্তন হতে দেখা যায় কিছু কিছু শিক্ষা লোনের সুদের হার 9.85% হয়ে থাকে। একনজরে বলা যেতে পারে এই লোনের সুদের হার 7.85% থেকে 9.85% মধ্যে থাকে। ” image-0=”” headline-1=”h3″ question-1=”আমি ২ লক্ষ টাকা শিক্ষা লোন কিভাবে পেতে পারি?” answer-1=”ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাংক দ্বারা জানানো হয়েছে শিক্ষা লোন সহজে প্রদান করার জন্য, আরবিআই অনুসারে সকল ব্যাংকের বলে দেয়া হয়েছে যে শিক্ষার প্রাথমিক হিসাবে এই লোন সহজে দেয়ার জন্য। বিভিন্ন ব্যাংক বর্তমান সময়ে অনলাইনের মাধ্যমে শিক্ষার জন্য আবেদন গ্রহণ করছে, যেকোনো ছাত্র-ছাত্রী উচ্চশিক্ষার জন্য অনলাইনে লোনের জন্য আবেদন করতে পারে। এর জন্য যাবতীয় কাগজপত্র সংগ্রহ করে এই লোনের আবেদন করলে সহজেই লোন পাওয়া যায়।” image-1=”” headline-2=”h3″ question-2=”শিক্ষা লোন নেওয়ার দরকার কি?” answer-2=”আমরা সকলেই জানি উচ্চশিক্ষার জন্য প্রচুর টাকার প্রয়োজন হয়। ভারতবর্ষের বেশিরভাগ মানুষই মিডিল ক্লাস সে কারণেই এত বেশি টাকা খরচ করে উচ্চ শিক্ষা দেবার মত সামর্থ্য সবার হয়ে ওঠে না। এই কারণেই শিক্ষা লোন দরকার হয়, মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীরা শিক্ষা লোন এর সাহায্যে উচ্চ শিক্ষা গ্রহণ করে চাকরি বা বিভিন্ন উচ্চ সংস্থায় কাজ করতে পারেন। এই কারণেই শিক্ষা লোন নেওয়া দরকার হয়ে পড়ে।” image-2=”” headline-3=”h3″ question-3=”শিক্ষা লোনের প্রসেসিং ফি কেমন?” answer-3=”বেশিরভাগ শিক্ষা লোনের প্রসেসিং ফি নেই বললেই চলে, কিন্তু এটা একদমই নেই সেটা বলা চলবে না কারণ বিভিন্ন ব্যাংক তাদের নিয়ম অনুসারে প্রসেসিং ফি ফের বদল করতে থাকে কোন ব্যাংক ফ্রিতে দেয় কোন ব্যাংক এর জন্য প্রসেসিং ফি নেই। তাই প্রসেসিং ফি নির্ভর করে ব্যাংকের ওপর।” image-3=”” count=”4″ html=”true” css_class=””]

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *