অস্ত্র লাইসেন্স এর জন্য আবেদন করবেন কিভাবে? নিয়ম ও আইন কি?

অস্ত্র বা হাতিয়ার নিতে চান? কিন্তু কিভাবে নেবেন জানেন না? অস্ত্র লাইসেন্স এর জন্য আবেদন আবেদন কিভাবে করতে হয়? অস্ত্র লাইসেন্স এর জন্য কি কি কাগজের দরকার হয়? জানুন অস্ত্র লাইসেন্স এর জন্য নিয়ম ও আইন এবং আবেদন পদ্ধতি।

কোন মানুষের কাছে তার জীবন রক্ষার্থের তাগিদে যদি কোন অস্ত্র রাখা হয়, সে ক্ষেত্রে আইনি অনুমতির প্রয়োজন রয়েছে। ভারতীয় বন্দুক এর জন্য 1959 তে অস্ত্র অধিনিয়ম অনুসারে একটি বিশেষ অধিকার রয়েছে। যা কিনা নাগরিক দের একটি লাইসেন্স প্রাপ্ত করার অনুমতি দিয়ে থাকে।

যদি কোন ব্যক্তি নিজের জীবনের বিপদ সম্পর্কে প্রমাণ দিতে পারেন যে, সেই বিপদের জন্য অস্ত্র রাখছেন, বলা যেতে পারে নিজের জীবন রক্ষার্থে অস্ত্র রাখছেন, তাহলে সে ক্ষেত্রে অনুমতি প্রাপ্ত হতে পারে।

অস্ত্র লাইসেন্স এর জন্য আবেদন করবেন কিভাবে? নিয়ম ও আইন কি?
অস্ত্র লাইসেন্স এর জন্য আবেদন করবেন কিভাবে? নিয়ম ও আইন কি?

সেই অস্ত্র এর ক্ষেত্রে লাইসেন্সের জন্য আবেদন করার প্রক্রিয়া একটি লম্বা প্রক্রিয়া এবং খুবই কষ্টসাধ্য তার সাথে বেশ কিছু টাকাও খরচ হয়ে যেতে পারে, বলতে গেলে একটি ব্যয়বহুল প্রক্রিয়া এই অস্ত্রের লাইসেন্স প্রাপ্ত করা।

ভারতে অস্ত্রের জন্য লাইসেন্স এর আবেদন করার ক্ষেত্রে কি প্রক্রিয়া রয়েছে?

১) কর্তৃত্বের / প্রাধিকরণ এর আবেদন: 

লাইসেন্সের অবদানের জন্য একটি আবেদন নির্ধারিত শুল্কের সাথে লাইসেন্স কর্তৃত্ব করা যেতে পারে। দিল্লিতে লাইসেন্স প্রাধিকরণ এডিসিপি লাইসেন্সিং রয়েছে। অন্যান্য রাজ্যে বসবাসকারী অথবা মহানগরে বসবাসকারী মানুষের জন্য স্থানীয় ডিসিপি লাইসেন্সিং এর কার্যালয় অস্ত্রের লাইসেন্স এর জন্য আবেদন করতে পারেন এবং বিনা মেট্রো শহরে বসবাস কারী মানুষের জন্য যারা স্থানীয় এসডিএম (উপ-বিভাগীয় ম্যাজিস্ট্রেট) এর কার্যালয় এই লাইসেন্সের জন্য আবেদন করতে পারেন।

২) প্রতিপাদন প্রক্রিয়া: 

আবেদন প্রাপ্ত হওয়ার পর লাইসেন্সিং আবেদনের পর নিকটতম পুলিশ স্টেশনে পুলিস আধিকারিকের কাছে রিপোর্টের জন্য বলতে হবে, আর এইভাবে আধিকারিকের নির্ধারিত সময়ের মধ্যে আপনার রিপোর্ট পাঠিয়ে দিতে হবে।

এটি সম্পূর্ণ রূপে পুলিশ প্রতিপাদন প্রক্রিয়ার জন্য করা হয়ে থাকে, এটি যাচাই করা হয়ে থাকে। আবেদনকারীর কোনরকম অপরাধমূলক রেকর্ড আছে, কি নেই সে বিষয়ে যাচাই করে দেখা হবে। আবেদনপত্রে ঘোষিত সমস্ত রকম সূচনার প্রমান পত্র হিসাবে।

অতীতে কোনো রকম অপরাধমূলক রেকর্ড যুক্ত ব্যক্তি হাতিয়ার অথবা অস্ত্রের জন্য লাইসেন্স পেতে পারেন না। তাছাড়া প্রায় সমস্ত মামলার ক্ষেত্রে একজন পুলিশ কর্মী প্রত্যেক ঠিকানার ওপর যাবেন এবং সম্ভবত আপনার প্রতিবেশী দের কাছে আপনার চরিত্র সম্পর্কে জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারেন।

আবেদনকারীকে সেই সমস্ত বিষয় গুলি মেনে চলতে হবে, যে গুলি একটি লাইসেন্স প্রাপ্ত করার জন্য গ্রহণযোগ্য। তার সাথে সাথে আপনার আবেদনের ঘোষিত হওয়া প্রয়োজন এবং যে স্থানে আবেদনকারী প্রায় পাঁচ বছর পর্যন্ত বসবাস করছেন।

আপনার দ্বারা প্রদান করা সমস্ত ঠিকানা রুপে সম্বন্ধিত স্থানীয় পুলিশ স্টেশনে থেকে একটি প্রতিবেদন রিপোর্ট এর অনুরোধ করা হয়ে থাকবে। এটি সেই জায়গা যেখানে ট্রানজিট এ অধিকাংশ লাইসেন্স আবেদন ফাইল হারিয়ে গিয়ে থাকে।

৩) লাইসেন্সের অনুদান অথবা অস্বীকার: 

লাইসেন্সিং প্রাধিকরণ এই রকম প্রয়োজনীয় যাচাইয়ের পর আর রিপোর্ট প্রাপ্ত হওয়ার পর উপরে বিচার করার পরবর্তীতে আইনের অধীন লিখিত রূপে আদেশ দিয়ে লাইসেন্স দেওয়া যেতে পারে অথবা লাইসেন্স দেওয়া থেকে আপনাকে নিষেধ করা হতে পারে বা আপনার আবেদনটি অস্বীকার করা হতে পারে।

অস্ত্র অথবা হাতিয়ারের লাইসেন্সের জন্য আবেদন করার সময় প্রয়োজনীয় গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র গুলি কি কি?

  • রেশন কার্ডের কপি,
  • ভোটার আইডি কার্ড,
  • লাস্ট 3 বছরের ইনকাম ট্যাক্স রিটার্ন,
  • চালান এর কপি,
  • আপনার এলাকায় দুইজন দায়িত্বশীল নাগরিক এর চরিত্রের প্রমাণপত্র,
  • শারীরিক / মানসিক স্বাস্থ্যের প্রমাণপত্র,
  • শিক্ষাগত যোগ্যতার প্রমান পত্র,
  • বয়সের প্রমাণপত্র যেমন ধরুন:- জন্ম সার্টিফিকেট, স্কুল সার্টিফিকেট ইত্যাদি
  • সুরক্ষা, কোনো বৈধ কারণের জন্য প্রয়োজনীয়তার উচিত এবং বৈধ সমস্ত রকম কাগজপত্র।

ভারতে অস্ত্র অথবা হাতিয়ারের লাইসেন্সের অনুমতির ক্ষেত্রে যোগ্য প্রয়োজনীয়তা কি?

আইনি হিসাবে অস্ত্র রাখার উদ্দেশ্য, যেমন ধরুন টার্গেট শুটিং এবং আরো অন্যান্য ব্যক্তিগত সুরক্ষার জন্য আপনার নিজেকে বাঁচানোর জন্য উচিত কারণ হিসেবে এই অস্ত্র রাখার অনুমতি পেতে পারেন, তবে খেলা অথবা খাওয়ার জন্য পশুদের এক জায়গায় করা অথবা জীবজন্তু কে শিকার করার জন্য এই রকম হাতিয়ার অথবা অস্ত্র রাখার অনুমতি পাওয়া যাবে না।

নাগরিক দের দ্বারা ব্যবহার করার জন্য বন্দুকের অথবা অস্ত্রের প্রকার কি?

নাগরিকদের দ্বারা ব্যবহার করা বন্দুক গুলি হল শ্যুটগান, হ্যান্ড গান এবং স্পোর্ট রাইফেল। নাগরিকরা বা জনসাধারণ বেশিরভাগ ক্ষেত্রে তিন হাতিয়ার অথবা অস্ত্রের লাইসেন্স পেতে পারেন।

এই ক্ষেত্রে কোনরকম সীমা নেই যে, তিনটি হাতিয়ার এর ক্ষেত্রে আপনি বন্দুকই রাখতে পারেন, এই জন্য সিদ্ধান্ত অনুযায়ী কোন ব্যাক্তি নিজের তিনটি অনুমতি প্রাপ্ত হাতিয়ার অথবা অস্ত্র রাখতে পারবেন তা নিম্নে দেওয়া এই ভাবে ব্যবহার করতে পারেন :-  

  • 1 টি হ্যান্ড গান + 1 টি বন্দুক + 1 টি রাইফেল (যা কিনা বেশিরভাগ মানুষ করে থাকেন কিন্তু এই বিশেষ সংযোজনের গুরুত্বপূর্ণ নিয়ম গুলি মেনে চলার জন্য কোন রকম আবশ্যিক আইন নেই)
  • অথবা, তিনটি হ্যান্ডগান
  • অথবা, দুটি হ্যান্ডগান + একটি রাইফেল
  • অথবা, দুটি হ্যান্ডগান + একটি বন্দুক
  • অথবা, তিনটি রাইফেল
  • অথবা, দুটি রাইফেল + একটি হ্যান্ড গান
  • অথবা, দুটি রাইফেল + একটি বন্দুক
  • অথবা, তিনটি বন্দুক
  • অথবা, দুটি বন্দুক + একটি হ্যান্ডগান
  • অথবা, দুটি বন্দুক + একটি রাইফেল

তিনটি অস্ত্রের জন্য আপনি যখন লাইসেন্স প্রাপ্ত করতে পারবেন, তাহলে সে ক্ষেত্রে এমন ভাবে আপনি কম্বিনেশন করে আপনার সুবিধা মতো নিজের সুরক্ষার জন্য এমন অস্ত্র রাখতে পারেন এবং তার লাইসেন্স প্রাপ্ত করতে পারেন বা বলতে গেলে আপনি এই সমস্ত হাতিয়ার এর জন্য লাইসেন্সের জন্য আবেদন করতে পারেন।

সেক্ষেত্রে আপনার আগের রেকর্ড খুবই ভালো থাকতে হবে অথবা আপনার কোন রকম অপরাধমূলক রেকর্ড যেন না থাকে, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।

তবে একটা কথা খেয়াল রাখা জরুরী যে, অস্ত্রের দিক থেকে আইন কখনো অবৈধ কাজের জন্য অনুমতি দিয়ে থাকে না। তাই নিজের সুরক্ষার জন্য যদি আপনি অস্ত্র রেখে থাকেন তাহলে খুবই ভালো কথা, আর যদি আপনি অসামাজিক কোন কাজ করে থাকেন বা পশুদের হত্যা করার জন্য, তাদেরকে বন্দী করে রাখার জন্য, অস্ত্রের ব্যবহার করেন সেক্ষেত্রে আইন আপনার বিরুদ্ধে অনেক বেশি কড়া পদক্ষেপ গ্রহণ করবে, সে দিকে খেয়াল রেখে তবেই কিন্তু আপনি লাইসেন্স প্রাপ্ত করতে পারেন।

সেই কারণেই এই অস্ত্রের লাইসেন্স প্রাপ্ত করা অনেকটা লম্বা প্রসেস, আর তার সাথে সাথে অনেকটা ব্যয়বহুল ও বটে। কারণ আইন আপনার সমস্ত দিক থেকে যাচাই করার পর তবেই অস্ত্র রাখার জন্য লাইসেন্স দেবে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *